বিয়ের ২২ দিনের মাথায় কিশো’রী বধূকে তা’লাক ৭৮ বছরের বৃ’দ্ধা লোক দেখুন বিস্তারিত

ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম জাবা দ্বীপের ৭৮ বছর বয়সী বৃ’দ্ধ আবা সারনা। নিজে’র বয়সের তুলনা ৬১ বছরের ছোট এক কি’শোরীকে বিয়ে করেন। জাবা দ্বীপের সুবাং এলাকার এই বৃ’দ্ধের বিয়ে মাস খানেক আগেই ১৭ বছর বয়সী কিশোরী ননি নভিতাকে বিয়ে করে হইচই ফে’লে দেন।

নব দ’ম্পতির বয়সের পা’র্থক্যের কারণে বেশ আ’লোচনা জ’ন্ম দি’য়েছিল তখন। তবে সে আলোচনা ২২ দিনেই শেষ করে নতুন আলোচনার জ’ন্ম দি’য়েছেন ইন্দোনেশিয়ার এই বৃ’দ্ধ। বিয়ের মাত্র ২২ দিনের মাথায় কি’শোরী বধূকে বি’চ্ছেদের চিঠি পাঠিয়েছেন ৭৮ বছর বয়সী আবা। তবে তার এমন

বি’চ্ছেদের সি’দ্ধান্তে বেশ হ’ইচই শুরু হলেও হ’তভম্ব কিশোরী বধূর পরিবার। এখনও পর্যন্ত তারা জানে না, কি কারণে তাদের ক’ন্যাকে বি’চ্ছেদের চিঠি পা’ঠানো হয়েছে।

কিশোরী বধূ নভিতার পরিবারের দা’বি, বিয়ের ২২ দিনের মধ্যে এমন কি ঘ’টলো যে বি’চ্ছেদের সিদ্ধা’ন্ত নিয়েছে আবা। নব দম্পতির মধ্যে কোনো দ্বন্দ্ব বা ঝ’গড়াও হয়নি একবারও। নভিতার বোন ইয়ান সে দেশের এক সংবাদমাধ্যম’কে বলেছেন, ‘আমি বি’স্মিত। ওদের মধ্যে কোনও মনোমালিন্য

নেই। তিনি জা’নান, বোনের বিয়ে ৭৮ বছরের একজন বৃ’দ্ধের স’ঙ্গে হচ্ছে তা নিয়েও তার পরিবারেরও কোনো আপ’ত্তি ছিল না।

নভিতার পরিবারের অ’ভিযোগ, আবা ও তার পরিবারের দিক থেকেই স’মস্যার কারণে এই বি’চ্ছেদের ঘ’টনা ঘ’টেছে। বিয়ের এক মাস পার না হতেই এমন বি’চ্ছেদে ভে’ঙে প’ড়েছে কিশো’রী বধূ নভিতা। তার পরিবারের দা’বি, বি’চ্ছেদের চিঠি পাওয়ার দিন থেকে নভিতাকে অব’সাদগ্রস্ত দেখা যাচ্ছে।

এই খবর পাওয়ার পর একদিন কোনও খাবারও খায়নি সে। অন্যদিকে, আবা’র পরিবারের অ’ভিযোগ ছিল, বিয়ের আগেই অ’ন্তঃসত্ত্বা ছিলেন নভিতা। কিন্তু এই অ’ভিযোগ ভি’ত্তিহীন বলে জা’নিয়েছেন নভিতার বোন ইয়ান।

সূত্র: আনন্দবাজার

## কমেন্ট বক্সে মতামত দিনঃ-

Check Also

এসএসসি পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা

করোনাভাইরাসের মধ্যে ২০২১ সালের এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন …

Leave a Reply

error: