হট পোশাকে হোলির রং মেখে ভেজা শরীরে দুর্দান্ত নাচ সুন্দরী যুবতীদের, ভিডিও ভাইরাল

বর্তমানে আমাদের খাওয়া-দাওয়া এবং ঘুম আমাদের আর পাঁচটা কাজকর্মের মত সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া যেন জীবন একেবারে অচল।সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে বর্তমানে আমরা যেভাবে বিভিন্ন ধরনের প্রতিভাবান শিল্পীদের সঙ্গে পরিচিত হওয়েছে ঠিক সেভাবেই সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের অনিক অভ্যাসের বদল ঘটিয়েছে তাই এখন শুধুমাত্র ফেসবুক কিংবা হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট করার মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার গুরুত্ব সীমাবদ্ধ নেই তার পরিধি বিস্তৃত হয়েছে অনেকটাই।বর্ধমানের ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম ইউটিউব এসবের মাধ্যমে মানুষের জনপ্রিয়তা পেতে খুব একটা বেশি সময় লাগে না

আর সোশ্যাল মিডিয়াতে হাতিয়ার করে অনেকে নিজেদের প্রতিভা প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে রোজগারের পথ খুঁজে পেয়েছেন আবার কেউ নিজেদের আনন্দ বিনোদন এবং একাকীত্ব থাকার অন্যতম মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছেন এই সমস্ত জিনিস গুলি কে।তাড়িত যারা তাদের সুপ্ত প্রতিভা গুলি এত দিন অবধি প্রকাশ্যে আনার সুযোগ পেতেন না এখন তারা তাদের প্রতিভা প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে একটা বড় প্ল্যাটফর্ম খুঁজে পাচ্ছে।কেউ আবার রাতারাতি ভাইরাল হয়ে উঠছেন আবার অনেকেই নিজেদের নাচ-গান ইত্যাদি প্রদর্শনের মধ্যদিয়েই তাবড় তাবড় শিল্পীদের প্রশংসা করছেন।

বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ আর এই তেরো পার্বণ উৎসবের সময় খাওয়া-দাওয়ার পাশাপাশি জমিয়ে আনন্দ-বিনোদন করা বাঙালির একটা অভ্যাস আছে সেভাবেই হোলি বাঙালির এক বিশেষ উৎসব।তাই হোলির দিন যেমন বসন্ত উৎসব পালন করা হয় রং মেখে ঠিক তেমনি দুর্দান্তভাবে নাচ করা হয় আর তাই সম্প্রতি বারানসি এক যুবতী হোলির দিন মুখে গায়ের রং মেখে সানুহার পড়ে এক ভোজপুরী গানে প্রকাশ্য রাস্তায় দুর্দান্ত নাচ করলেন।

মুহূর্তের মধ্যে তাঁর সেই নাচের ভিডিও লক্ষ্য লক্ষ্য জনগণের কাছে পৌঁছে গেছে আর এভাবেই সে বিভিন্ন মহল থেকে প্রশংসিত হয়েছে। আসলে সেই মহিলার চেহারা যথেষ্টই নজর খারাপ কারণ তিনি প্রচণ্ড মোটা অথচ এই চেহারায় দুর্দান্ত নাচ করে মুহূর্তের মধ্যে সকলের নজরে এসেছেন।

## কমেন্ট বক্সে মতামত দিনঃ-

Check Also

একদিনের জন্য 10 বছরের বাচ্চাকে করা হলো পু-লিশ কমিশনার, কারণ জানলে অ-বাক হবেন!

আমাদের মধ্যে অনেকেরই ইচ্ছে থাকে যে বড় হয়ে একজন সুদক্ষ সৎ পু-লিশ অ-ফিসার হবার কিন্তু …

Leave a Reply

error: