‘উরি উরি বাবা বিজেমূল’ প্যারোডি তে ফের নতুন চমক বামেদের

ভোট বড় বালাই। ভোট আসলেই প্রতিটা রাজনৈতিক দল একে অপরকে টেক্কা দিতে নয়া নয়া চমক দিতে তৎপর। বাম শিবির ও কোন অংশে পিছিয়ে নেই তা‌ আর বলার অপেক্ষা রাখে না।টুম্পা সোনা গান-এ আগেই দেখেছিলাম বাম পন্থীদের প্যারোডি । বেশ মজাই লেগেছিল হয়ত আমাদের সবার। ব্যাপারটা বেশ মুখরোচক লেগেছিল নেতিজেনদের। এবার আবার নতুন গান নিয়ে হাজির বামেরা।

ঊষা উত্থুপ এর বিখ্যাত গান ” উরি উরি বাবা” নিয়ে প্যারোডি বানিয়ে ভোট যুদ্ধে নেমেছে বামেরা।ব্যঙ্গচিত্র কে হাতিয়ার করে জবাব দেবার পদ্ধতি সেই স্বাধীনতা র সময় থেকে চলে আসছে। আবারও সেই পদ্ধতিকে কাজে লাগিয়ে তৃণমূল ও বিজেপিকে ব্যঙ্গ করার উপায় বের করেছে বামপন্থীরা ।

‘টুম্পা সোনা ‘, লুঙ্গি ড্যান্স এর পর বামেদের তৃতীয় প্যারোডি হলো ‘ উরি উরি বাবা’ । তরুণ প্রজন্ম থেকে প্রবীণরাও নেট থেকে বিচ্ছিন্ন কেউ নেই, তাই নেট মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে জোর প্রচার চালাচ্ছেন বামেরা। প্রতিপক্ষ শিবিরকে আক্রমণ সানিয়ে এর চেয়ে ভালো বিকল্প হয়ত আর হতে পারেনা। প্যারোডিতে তৃণমূল আর বিজেপি উভয় দলকেই আক্রমণ করা হয়েছে।

দুটো দলকে একসাথে মিশিয়ে তাদের আবার বিজেমুল নামও দেওয়া হয়েছে। ব্যঙ্গ করে হলেও বিরোধীদের এই ধরনের আক্রমণ একদম অভিনব, যাকে বলে কান টেনে মাথা আনা। গান এর লাইন এ বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপি দুটো দল এর মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। দুটি দলই সুবিধাভোগী। গান এর লাইন এ বলা হয়েছে ” কয়লাও খায়, কোকেন সাটায় এক ঘরেরই দুই ফুল।

বাংলা ঘুরে দেখতে পাবে সব বিজেপি তৃণমূল” এখানে নারদার ঘুষ কাণ্ড থেকে শুরু করে কয়লা কাণ্ড সব প্রসঙ্গ বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে এই প্যারডির মাধ্যমে। এছাড়া দুটো দল এর বার বার প্রার্থীদের দল বদল করার প্রসঙ্গ কেও বাদ দেওয়া হয়নি।গান এ বলা হয়েছে বার বার প্রার্থী র কেনো দল বদল করছে তা বুঝতে বাকি নেই। কটাক্ষের সুরে বলা হয়েছে ফুল বদল হয়ে গেলেও মুখ গুলো একই আছে। তাই তাদের কাজ ও একই থাকবে।

এর আগে হয়ত এরম অভিনব কৌশলে প্রতিপক্ষ শিবির কে বান এ বিদ্ধ করতে আমরা দেখিনি। বামেরা বুঝিয়ে দিয়েছে একে অপরকে প্রতিহিসার তোপ না ঝেরেই, কিভাবে শান্ত থেকে কটাক্ষ করা যায়। ভিডিও টি প্রকাশ পেতেই বেশ ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয় । নেটিজেণ রা বেশ সরব হয়। বিরোধী দের অবশ্য একটু অস্বস্তি হয়েছে বলতেই হয়।

## কমেন্ট বক্সে মতামত দিনঃ-

Check Also

একদিনের জন্য 10 বছরের বাচ্চাকে করা হলো পু-লিশ কমিশনার, কারণ জানলে অ-বাক হবেন!

আমাদের মধ্যে অনেকেরই ইচ্ছে থাকে যে বড় হয়ে একজন সুদক্ষ সৎ পু-লিশ অ-ফিসার হবার কিন্তু …

Leave a Reply

error: