নানা স্বাদে ডিম

টার্কিশ এগ কারি

উপকরণ: জলপাই তেল ৩ টেবিল চামচ, বড় পেঁয়াজ (কুচি) ১টি, ক্যাপসিকাম লাল, সবুজ, হলুদ কুচি ৩টি, টমেটো কুচি ৩ কাপ, রসুন ৪ কোয়া (কুচি), লবণ স্বাদ অনুসারে, ডিম ৬টি, গোলমরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ ও পুদিনাপাতা সাজানোর জন্য।

প্রণালি: প্রথমে প্যানে তেল দিয়ে গরম করতে হবে। এরপর পেঁয়াজ কুচি, ক্যাপসিকাম কুচি, টমেটো কুচি, গোলমরিচের গুঁড়া, লবণ ৫ থেকে ৭ মিনিট ভালো করে নাড়াচাড়া করতে হবে। প্যানের মধ্যে একটু জায়গা করে ডিম ছেড়ে দিতে হবে। অনেকটা পোচের মতো দেখতে হবে। আবারও এর ওপর লবণ, গোলমরিচের গুঁড়া, পুদিনাপাতা ছড়িয়ে দিতে হবে। এরপর পরিবেশন।

ডিম সবজি তরকারি

উপকরণ: সেদ্ধ ডিম ৪টি, চিচিঙ্গা (খোসা ছাড়িয়ে গোল করে কাটা) ২টি, ছোট আলু ৪টি, সবুজ টমেটো ২টি, ছোট চিংড়ি ১০০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, রসুন কোয়া ৩টি, কাঁচা মরিচ ৫টি, নারিকেলের দুধ ৩ কাপ, লবণ ও হলুদ প্রয়োজনমতো, সাদা জিরা ও সরিষা (ফোড়নের জন্য) অল্প পরিমাণ ও তেল ৩ টেবিল চামচ।

প্রণালি: প্রথমে ডিমগুলো সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। ডিমে হলুদ ও লবণ মাখিয়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। ওই তেলে জিরা, সরষে আর কারি পাতার ফোড়ন দিতে হবে। ফোড়ন হয়ে এলে এর মধ্যে পেঁয়াজ-রসুন দিয়ে হালকা করে ভাজতে হবে। এবার একে একে সব সবজি দিয়ে ভালো করে কষাতে হবে। এবার এতে চিংড়ি মাছ বাটা, লবণ ও ডিমগুলো মেশাতে হবে। কিছুক্ষণ ঢেকে রাখতে হবে। সবশেষে দুধ, কারি পাতা আর কাঁচা মরিচ দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে নামিয়ে ফেলতে হবে।

ডিম-আলুর সালাদ

উপকরণ: আলু ৫টি, ডিম ৩টি, সেলারি পাতা কুচি আধা কাপ, সেলারি পাতা কাটা ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, সরষে বাটা ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া পরিমাণমতো ও মেওনেজ সিকি কাপ।

প্রণালি: আলু সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে রাখতে হবে। ডিম সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে রাখতে হবে। একটু বড় পাত্রে আলু, ডিম, পেঁয়াজ, সেলারি, সরষে বাটা, গোলমরিচ ও মেওনেজ একসঙ্গে মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে পরিবেশন করতে হবে।

ডিমের সবুজ সালাদ

উপকরণ: সেদ্ধ ডিমের সাদা অংশ ৫টি, লেটুসপাতা প্রয়োজনমতো, লবণ স্বাদ অনুসারে, গোলমরিচের গুঁড়া পরিমাণমতো, জলপাই তেল ১ টেবিল চামচ, সালাদ ড্রেসিং প্রয়োজনমতো ও তাবাস্কো সস সামান্য।

প্রণালি: প্যানে তেল গরম করে তাতে লেটুসপাতা দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিতে হবে। এর মধ্যে লবণ ও গোলমরিচের গুঁড়া দিয়ে ভালো করে নাড়ুন। চুলা থেকে নামিয়ে প্লেটে প্রথমে লেটুসপাতা দিন, তাঁর ওপরে ডিমের সাদা অংশ দিয়ে সাজিয়ে দিতে হবে। সবশেষে সালাদ ড্রেসিং করে তাবাস্কো সস ছড়িয়ে পরিবেশন করতে হবে।

ডিম চিংড়ি

উপকরণ: সেদ্ধ করা মুরগির ডিম ৬টি, চিংড়ি (ছোট) ১ কাপ, মুরগির মাংসের কিমা ১০০ গ্রাম, বেরেস্তা ১ বাটি, আদা, রসুন বাটা ৩ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়া ১ চা-চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চা-চামচ, বাদাম বাটা দেড় চা-চামচ, কাশ্মিরী মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, টমেটো পিউরি ১ চা-চামচ, তেল ৩ টেবিল চামচ, ঘি ২ টেবিল চামচ ও লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালি: কড়াইয়ে তেল দিয়ে সেদ্ধ করা ডিমগুলো সামান্য হলুদে মাখিয়ে অল্প ভেজে তুলে রাখতে হবে। এরপর কড়াইয়ে আবারও তেল গরম করে মুরগির কিমা দিয়ে অল্প পরিমাণ হলুদ ও রসুন বাটা আর সামান্য লবণ দিয়ে কষিয়ে তুলে রাখতে হবে। এই তেলেই চিংড়ি হালকা ভেজে নিতে হবে। এবার কড়াইয়ের তেলে একে একে বেরেস্তা, আদা বাটা, রসুন বাটা, ধনে গুঁড়া, টমেটো পিউরি, হলুদ ও কাশ্মিরী মরিচের গুঁড়া দিতে হবে। এরপর সব একসঙ্গে কষাতে হবে। এই কষানো মসলায় কিমা, চিংড়ি দিয়ে আবারও ভালো করে কষাতে হবে। তেল ছেড়ে এলে এর মধ্যে গরমমসলার গুঁড়া দিয়ে ভালো করে নেড়ে দিতে হবে। ২ মিনিট পর ভেজে রাখা ডিম পরিমাণমতো লবণ মাখিয়ে হালকা আঁচে রান্না করতে হবে। ঝোল ঘন হয়ে এলে ওপর থেকে ঘি দিয়ে এক-দুই মিনিট হালকা আঁচে রেখে ধনেপাতা কুচি ওপরে দিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *